• বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:১২ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English

এক ব্যবসায়ীর আর্তনাদ সরকারের প্রতি আবেদন

বিশেষ প্রতিবেদক
আপডেট : বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১

কক্সবাজারের এক মোবাইল এক্সেসরিজ ব্যবসায়ী মোহাম্মদ শাহাজাহান চৌধুরীর আবেগময় ফেইসবুক স্ট্যাটাস তার টাইম লাইন থেকে পাঠকের সুবিধার জন্য হুবুহু নিচে দেওয়া হল।

মাননীয় সরকার বাহাদুর ,
আমি/আমরা আপনার রাষ্ট্রের ব্যবসায়ী প্রজা সম্প্রদায়। করোনা পরিস্তিতিতে আমার/আমাদের অসুবিধা ও তার প্রতিকার আপনার সরকারের দৃষ্টি আকর্ষন ও সুবিবেচনার আলোকে সাধারন প্রচেষ্ঠা।
মাননীয়, বিগত ২৫শে মার্চ ২০২০ ইংরেজী হইতে অদ্যবদি আমাদের অপূরনীয় ক্ষয় ক্ষতি সমূহ:

➡️ বিগত ১৬ মাস যাবত করোনা পরিস্তিতির কারনে বেশিরভাগ সময় সরকার ঘোষিত লক ডাউনের কারনে আমার/আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সম্পূর্ণ বা খন্ডকালীন বন্ধ ছিল এবং রয়েছে। কিন্তু পরিতাপের বিষয় , এই সময় আমার/ আমাদের :
১। প্রতি মাসের দোকান ভাড়া।
২। প্রতি মাসের কর্মকর্তা কর্মচারীদের বেতন।
৩। প্রতি মাসের বিদ্যুৎ বিল।
৪। প্রতি মাসের ঋনের কিস্তি।
৫।প্রতি বছর ট্রেড লাইসেন্স নবায়ন।
৬। প্রতি বছর আয়কর রিটার্ন জমাদান।
৭। নিজেদের বাড়ি ভাড়া ।
৮। পরিবারের ভরন পোষন ও অন্যান্য ।

🚩 সমসাময়ীক অন্যান্য ব্যয় হিসাব সমূহ ব্যতিরেখে অবশ্যই করনীয় এই ৮ টি হিসাব (ব্যবসার অস্তিত্ব রক্ষার জন্য অত্যাবশ্যক ) বিবেচনা করলে একটি উপজেলা কেন্দ্রিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রতি মাসে নুন্যতম ১,০০,০০০/= ( এক লক্ষ) টাকা ব্যয় বিবেচনা করা হলে এই ১৬ মাসে আবশ্যিক ব্যয় ১৬,০০,০০০/= ( ষোল লক্ষ) টাকা।

😇 বিবেচ্য বিষয় সমূহ:
১। ব্যবসার আকার আয়তন ও মূলধন ভেদে এই ব্যয় কত % ব্যবসায়ীর দ্বিগুন, তিন গুন বা তারও কম/বেশী?
২।অতিবাহিত সময়ে কত % ব্যবসায়ী এই ব্যয় নির্বাহ করতে গিয়ে তাদের মোট বিনিয়োগের কত % পুঁজি হারিয়েছে/কত % সম্পূর্ন পুঁজি হারিয়ে দেওলিয়া হয়েছে/ হওয়ার দারপ্রান্তে?
৩। যেহেতু এই অবস্থা চলমান সেহেতু প্রতি মাসে কত % ব্যবসায়ী দেওলিয়া হতে থাকবে?

🚩 মাননীয় সরকার বাহাদুর,
আমরা একটি নিম্ন মধ্য আয়ের দেশ, হাজারো সীমাবদ্ধতার মধ্যে কোন ভাবেই সহজ শর্তে ঋন বা অন্য কোন উপায়ে এত বিরাট একটি ব্যবসায়ী গোষ্ঠীকে পুনর্বাসন করা অসম্ভব একটি পক্রিয়া।

🟢 মাননীয় সরকার বাহাদুর,
এমত অবস্থায় ঘরে বসে দেওলিয়া হওয়ার চেয়ে একটু ঝুঁকি নিয়ে আমাদের স্বাস্হ্য বিধি মেনে ব্যবসা পরিচালনার সুযোগ করে দিন। প্রয়োজনে স্বাস্হ্য বিধি অমান্যকারী ক্রেতা ও বিক্রেতার জন্য কঠিন জেল, জরিমানা/ বিধি নিষেধ আরোপ করুন এবং তা কঠিন ভাবে বাস্তবায়ন করুন।

মাননীয়,
পরিশেষে আকুল আবেদন, এই মহামারীর আশু কোন সমাধান আদৌ বিশ্ববাসীর ধারনাতীত সুতারাং স্বাস্হ্য বিধি অমান্যকারীদের কঠোর হস্তে দমন পূর্বক বিধি মোতাবেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার যুক্ত সঙ্গত ও সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত গ্রহন পূর্বক অর্থনীতির চাকা খ্যাত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গুলো গতিশীল রেখে দেশ ও দশের উন্নয়নে মহোদয়ের মর্জি প্রার্থনা করিতেছি।


আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ